Wednesday 21 February 2024
Home      All news      Contact us      RSS      English
somoyerkonthosor - 3 month ago

সাকিবের বার্ষিক আয় সাড়ে ৫ কোটি টাকা, ব্যাংক ঋণ ৩১ কোটি

মাগুরা: ক্রিকেটের মাঠ থেকে রাজনীতির মাঠ, সবজায়গাই কাঁপিয়ে বেড়াচ্ছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের পোস্টার বয় সাকিব আল হাসান। আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের হয়ে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করবেন সাকিব। তাও নিজের জন্মভূমি মাগুরা থেকে।
ইতোমধ্যে সাকিবের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেছে জেলা রির্টার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক। মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় দেয়া হলফনামায় নিজের আয়-ব্যায়ের হিসাব জমা দিয়েছেন এই অলরাউন্ডার। হলফনামায় সাকিব নিজের পেশা হিসেবে ক্রিকেটার দেখিয়েছেন এবং শিক্ষাগত যোগ্যতা দেখিয়েছেন বিবিএ পাশ।
তিনি তার হলফনামায় বার্ষিক গড় আয় দেখিয়েছেন ৫ কোটি ৫৫ লাখ ৭১ হাজার ২৬২ টাকা। বৈদেশিক মুদ্রা দেখিয়েছেন ২৪ হাজার ২৬১ ডলার। ক্রিকেটের বার্ষিক পেশাগত আয় দেখিয়েছেন ৫ কোটি ৩২ লাখ ৭৪ হাজার ৭৬৯ টাকা। অস্থাবর সম্পদ হিসেবে ব্যাংক জমা দেখিয়েছেন ১১ কোটি ৫৬ লাখ ৯১ হাজার ৮৭৬ টাকা। শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ দেখিয়েছেন ৪৩ কোটি ৬৩ লাখ ৯৬ হাজার ৮৭৪ টাকা। সোনা দেখিয়েছেন ২৫ ভরি। আসবাপত্র ও ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী দেখিয়েছে ১৩ লাখ টাকা।
এদিকে জামানতের বিপরীতে ব্যাংক লোন দেখিয়েছে ৩১ কোটি ৯৮ লাখ ৬১ হাজার ৩৮২ টাকা। ইর্স্টান ব্যাংকে লোন দেখিয়েছেন ১ কোটি ৫০ লাখ ২০ হাজার ৩৬৩ টাকা। আয় থেকে ব্যাংক আমানত দেখিয়েছেন ২২ লাখ ৯৬ হাজার ৪৯৩ টাকা।
জেলা রিটানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে দেয়া মনোনয়নপত্র থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবু নাসের বেগ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।উল্লেখ্য, জাতীয় দলের ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান মাগুরা -১ আসন (মাগুরা সদরের একাংশ ও শ্রীপুর উপজেলা) থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
এদিকে মনোনয়ন পাওয়ার পর গত সপ্তাহে প্রথমবার নির্বাচনী এলাকায় যান সাকিব। সে সময় হাজারো হাজার নেতাকর্মী ও ক্রিকেট অনুরাগী মোটরসাইকেলের বহর নিয়ে সাকিবকে অভ্যর্থনা জানায়।
এরপর মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে সভায় যোগ দেন সাকিব। সেখানে দলীয় নেতাকর্মীরা তাকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। পরে আরও কয়েকটি অনুষ্ঠানে দেখা যায় সাকিবকে।
নির্বাচনের আচরণ বিধি না মেনে প্রচার শুরুর নির্দিষ্ট তারিখের আগেই জনসংযোগ, শোভাযাত্রা করায় সাকিবের কাছে ব্যাখ্যা চেয়ে চিঠি দেয় নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি। আদালতে হাজির হয়ে নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘন করার অভিযোগের লিখিত ব্যাখ্যা দিতে হয় সাকিব।
প্রধান যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ সত্যব্রত শিকদারের আদালতে হাজির হয়ে লিখিত ব্যাখ্যায় সাকিব বলেন, ২৯ তারিখে আমি মাগুরায় আসলে আমার ভক্তসহ শহরবাসী আমাকে শুভেচ্ছা জানান। এটা একটি অনাকাঙ্খিত ঘটনা। এ ঘটনার জন্য আমি খুবই দুঃখিত।
আমি নির্বাচনি আইনের প্রতি যথেষ্ঠ শ্রদ্ধাশীল। তবে নির্বাচনে এই প্রথম ও নতুন। আগামীতে যেন এরকম ঘটনা না ঘটে সেদিকে আমি দৃষ্টি রাখব।


Latest News
Hashtags:   

সাকিবের

 | 

বার্ষিক

 | 

ব্যাংক

 | 

Sources