Monday 1 June 2020
Home      All news      Contact us      English
jagonews24 - 9 days ago

গভর্নর পদে ফজলে কবিরের মেয়াদ বাড়াতে সংশোধন হচ্ছে আইন

বিদ্যমান আইন অনুযায়ী আগামী ৩ জুলাই বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবিরের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। কিন্তু সরকার তাকে এই পদে আরও দুই বছর রাখতে চায়। তাই শুধু ফজলে কবিরকে আবার নিয়োগ দিতে সংশোধন করা হচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডার। অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, বিদ্যমান আইন অনুযায়ী বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবিরের মেয়াদ বাড়ানোর আর কোনো সুযোগ নেই। কারণ তার বয়স ৬৫ বছর ছুঁই ছুঁই। বাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডার অনুযায়ী, ৬৫ বছর বয়স হয়ে গেলে আর কেউ গভর্নর থাকতে পারেন না। তারপরও সরকার ফজলে কবিরকে আরেক দফায় গভর্নর পদে রাখতে চাইছে। শুধু তাকে আবার নিয়োগ দিতেই সংশোধন করা হচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক অর্ডার, যা দেশের ইতিহাসে প্রথম ঘটনা। তিনি দুই বছরের জন্য নিয়োগ পেতে পারেন। এখন যেহেতু জাতীয় সংসদের কোনো অধিবেশন নেই, তাই রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ জারির মাধ্যমে এ অর্ডার সংশোধনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের যুক্তি হচ্ছে, করোনাভাইরাসের কারণে আর্থিক খাতের ক্ষতি মোকাবিলায় যতগুলো প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে, সেগুলোর বেশিরভাগই বাস্তবায়নের দায়িত্ব ব্যাংক খাতের। গভর্নর হিসেবে নতুন কেউ এলে এসব প্যাকেজ বুঝতে বুঝতেই কয়েক মাস লেগে যাবে তার। তাই এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনার পর ২০১৬ সালের ১৫ মার্চ তৎকালীন গভর্নর আতিউর রহমান পদত্যাগ করলে পরদিনই ফজলে কবিরকে চার বছরের জন্য গভর্নর নিয়োগ দেয় সরকার। তখন তিনি বিদেশে ছিলেন এবং ফিরে এসে গভর্নর হিসেবে দায়িত্ব নেন ২০ মার্চ। সে হিসেবে তার মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিল চলতি বছরের ১৯ মার্চ। কিন্তু মেয়াদ শেষ হওয়ার ৩৪ দিন আগে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি গভর্নর হিসেবে ফজলে কবিরের মেয়াদ ৩ মাস ১৩ দিনের জন্য বাড়ায় সরকার। এতে বলা হয়, ৬৫ বছর পূর্ণ হওয়া পর্যন্ত তিনি গভর্নর থাকবেন। ফজলে কবিরের বয়স ৬৫ বছর পূর্ণ হবে আগামী ৩ জুলাই। এমইউএইচ/এইচএ/এমকেএইচ


Latest News
Hashtags:   

গভর্নর

 | 

কবিরের

 | 

মেয়াদ

 | 

বাড়াতে

 | 

সংশোধন

 | 

হচ্ছে

 | 
Most Popular (6 hours)

Most Popular (24 hours)

Most Popular (a week)

Sources