Monday 30 March 2020
Home      All news      Contact us      English
jagonews24 - 4 days ago

ফুলে ফুলে ছেয়ে গেছে ডিএসসিসির সড়ক বিভাজক

বহুতল ভবনে ঠাসা রাজধানী ঢাকা। এ মেগাসিটির জনসংখ্যা দুই কোটি ছুঁই ছুঁই। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে রাজধানীর জনসংখ্যা এবং আকাশচুম্বী ভবন যেমন বাড়ছে তেমনি পাল্লা দিয়ে কমছে সবুজের সমারোহ। রাজধানীতে সবুজের সমারোহ বাড়াতে বাগানবিলাস প্রকল্পের আওতায় ফুলে ফুলে সেজেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) বেশ কয়েকটি সড়ক বিভাজক। ছড়াচ্ছে সৌরভও। গাছগুলোতে ফুল ফুটেছে। বেড়েছে সড়কের সৌন্দর্য। বাগনবিলাস ফুল দেখতে রঙিন কাগজের মতো। তাই একে কাগজ ফুল বা কাগজি ফুল নামেও ডাকা হয়। এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য ছিল, সড়কে ফুলের সৌন্দর্য শোভা পাবে সেই সঙ্গে ছড়াবে সৌরভ। সেই অনুযায়ীই ডিএসসিসি আওতাধীন রাজধানীর বেশ কিছু এলাকার মিডিয়ানে (সড়কের বিভাজন) এসব চারা লাগানো হয়েছিল। সেসব চারা থেকে ফুটেছে ফুল। ছড়াচ্ছে সৌরভ। ফলে ইট-পাথর আর কংক্রিটের রাজধানীতে সবুজের সান্নিধ্য খুঁজে পেয়েছে ডিএসসিসি এলাকাবাসী। ঘিঞ্জি ও জঞ্জালপূর্ণ নগরী সেজেছে প্রকৃতির সবুজ পরশে। সবুজ আর গোলাপী হয়েছে পুরো এলাকা। ফলে ভিন্ন এক রূপে সেজেছে ঢাকা দক্ষিণ এলাকা। বাগানবিলাস প্রকল্পের আওতায় সড়ক বিভাজকে সৌন্দর্য বৃদ্ধির মেগা প্রকল্পটি গ্রহণ করেন দক্ষিণের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। এসব গাছ পরিচর্যায় প্রতিদিন সিটি করপোরেশনের দক্ষ শ্রমিক নিয়োজিত রয়েছে। যারা গাছে পানি দেয়া থেকে শুরু করে নির্দিষ্ট সময় অন্তর শাখা-প্রশাখা ছাঁটাইসহ অন্যান্য পরিচর্যার কাজ করেন। মৎসভবন এলাকায় দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন বেসরকারি চাকরিজীবী আরিফুল ইসলাম সাগর। তিনি বলেন, রাজধানীতে আকাশচুম্বী ভবন যেমন বাড়ছে তেমনি পাল্লা দিয়ে কমছে সবুজের সমারোহ। যানজটের কারণে হেঁটে চলার পরিবেশও নেই।কিন্তু ঢাকা দক্ষিণের কিছু কিছু রাস্তা দিয়ে হাঁটলে মনে হয়, উন্নত দেশের রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছি। রঙিন ফুলে ফুলে ছেয়ে আছে সড়কের বিভাজক। সবুজ গাছ আর গোলাপী ফুলে ছেয়ে পুরো রাস্তার রূপই বদলে গেছে।সেই সঙ্গে এলইডি বাতি, এলইডি বিলবোর্ড, সব মিলিয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের কিছু কিছু রাস্তার সৌন্দর্যের কারণে মনে হয় উন্নত কোনো দেশের রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছি। ডিএসসিসি সূত্রে জানা গেছে, প্রকল্পের আওতায় প্রায় আট কিলোমিটার সড়ক বিভাজকে বাগানবিলাস ফুলগাছ লাগানো হয়েছে। সড়কের মধ্যে রয়েছে- গোলাপশাহ মাজার থেকে কাকরাইল নাইটিঙ্গেল মোড়, বঙ্গবাজার থেকে শেরাটন হোটেল, মৎস্যভবন থেকে শাহবাগ মোড়, রমনা থানার সামনে থেকে সবজিবাগান এলাকা, গুলিস্তানের গোলাপ শাহ মাজার থেকে ফুলবাড়িয়া বাসস্ট্যান্ড এবং মতিঝিলের বলাকা চত্বর এলাকা। প্রকল্পের আওতায় সড়ক বিভাজকে ফুলগাছ লাগানোর পাশাপাশি সেগুলোর সুরক্ষায় লোহার গ্রিল দেয়াসহ বেশকিছু পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করা হয়েছে। এ বিষয়ে ঢাকা দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, শহরটাকে সুন্দর করে তুলতে, ভিন্ন রূপে সাজাতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছি।যার মধ্যে অনেক কিছুই বাস্তবায়ন হয়েছে, অনেক কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। শহরের বিভিন্ন ইতিবাচক পরিবর্তন শুরু হয়েছে। মানুষ যানজটের থাকলেও বা হেঁটে হেঁটে যাওয়ার সময় এসব রঙিন ফুল গাছের সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারবেন। পর্যায়ক্রমে সব সড়কে এমন সৌন্দর্যের রূপ দেয়ার পরিকল্পনা আছে।আশা করি নতুন জনপ্রতিনিধিরা এ ধারা অব্যাহত রাখবেন। এএস/এএইচ/এমকেএইচ


Latest News
Hashtags:   

ডিএসসিসির

 | 

বিভাজক

 | 
Most Popular (6 hours)

Most Popular (24 hours)

Most Popular (a week)

Sources